আশায় হাসুক ১৪

পর্দা উঠছে প্রাণের উৎসবের। ‘ফ্রেমে ফ্রেমে আগামী স্বপ্ন’ স্লোগানে আজ শুরু হচ্ছে ১৪তম আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব বাংলাদেশ। গত ১৩ বছরের থেকে এবারের আসর একটু ভিন্ন। করোনা মহামারীর কারণে উৎসব হচ্ছে সর্বোচ্চ সতর্কতা আর সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে। প্রতিবারের মতোই মূল উৎসব কেন্দ্র শাহবাগের গণগ্রন্থাগারে বর্ণিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়ে যাত্রা শুরু করবে উৎসব। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকছেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মন্ত্রী জনাব ড. হাছান মাহমুদ, বিশেষ অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জনাব কে এম খালিদ, চিল্ড্রেনস ফিল্ম সোসাইটি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা জনাব মোরশেদুল ইসলাম, জেনারেল সেক্রেটারি মুনিরা মোরশেদ মুন্নী, অনলাইনে যুক্ত হবেন চিল্ড্রেনস ফিল্ম সোসাইটি বাংলাদেশ- এর সভাপতি ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। 

মূল উৎসব কেন্দ্রের শওকত ওসমান মিলনায়তন ছাড়াও জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে আগামীকাল থেকে প্রতিদিন সকাল ১১টা,দুপুর ২টা,বিকাল ৪ টা এবং সন্ধ্যা ৬ টায় চলবে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী। চলচ্চিত্র দেখতে কোন টিকেট না থাকলেও এবার মাস্ক পরিধানকে উৎসবের টিকেট হিসেবে বিবেচনা করা হবে। 

আয়োজন স্বল্প পরিসরে হলেও, চলচ্চিত্র জমা পড়েছে প্রতিবারের মতোই বিপুল সংখ্যায়। বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে যেমন এসেছে শিশুদের নির্মিত চলচ্চিত্র, তেমন এসেছে বড়দের বানানো শিশুতোষ চলচ্চিত্রও। বাছাইপর্ব শেষে উৎসবের সাতদিনে প্রদর্শনের জন্য নির্বাচিত হয়েছে ৩৭টি দেশের ১৭৯টি চলচ্চিত্র। প্রতিবারের মতো এবারও শিশুদের নির্মিত চলচ্চিত্রের বিচারকমণ্ডলি গঠিত হয়েছে শিশুদের নিয়েই। আন্তর্জাতিক বিভাগে থাকছে বিশিষ্ট নির্মাতাদের নিয়ে তৈরি করা পৃথক বিচারক প্যানেল। 

ক্ষুদে নির্মাতারা ৪টি কর্মশালায় মিলিত হবেন দেশনন্দিত চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সাথে। এ ছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তারকা অতিথিদের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আড্ডা তো আছেই। 

মহামারীতে বদল হয়েছে জীবনাচরণ, গত উৎসব থেকে এবারের উৎসবের পরিসর কমে এসেছে অনেকখানি, তবুও ক্ষুদে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের এই আসরের আয়োজকরা কাজ করছেন পুরো দমে। শিশুদের এই আয়োজনের আয়োজকও কিন্তু শিশুরাই। গত একটি বছরের সকল স্থবিরতা কাটিয়ে উঠে যেন গা-ঝাড়া দিয়ে উঠেছে সারা দেশের ক্ষুদে চলচ্চিত্রপ্রেমীরা। সব কিছু সুন্দর, সুশৃঙ্খলভাবে করার পাশাপাশি লক্ষ্য রাখতে হচ্ছে সকলের সুরক্ষার দিকেও। তাই তো এত ছোটাছুটির মধ্যেও সবাই মনে রাখছে উৎসব যেন অনুষ্ঠিত হয় সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে। 

চিলড্রেন’স ফিল্ম সোসাইটি বাংলাদেশের আয়োজনে সাত দিনব্যাপী এই উৎসব চলবে আজ থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

 

  • ঋদ্ধ অনিন্দ্য গাঙ্গুলী 

© 2021 Children's Film Society Bangladesh

This website is designed & supported by Hootum Bangladesh Limited

Log in with your credentials

Forgot your details?